টাইডাই পদ্ধতিতে কিভাবে কাপড়ে বিভিন্ন নকশা ফুটিয়ে তোলা যায়।

 

টাইডাই পদ্ধতিতে কাপড়ে রং করে বিভিন্ন নকশা ফুটিয়ে তোলা যায়।সাধারন ভাবে কাপড় বেধে কাপড় রং এর মধ্যে ডুবিয়ে রাখাকে  টাইডাই পদ্ধতি বলে। এই পদ্ধতিতে ঘরে বসেই কাপড় রং করা যায়। লাল,নীল,বেগুনী,হলুদ সহ অনেক রং করা যায়।

টাইডাই করার পদ্ধতি:

টাইডাই করার উপকরন:

১.প্লাস্টিকের বালতি বা গামলা ১ টি।

২.প্লাস্টিকের মগ ১টি।

৩.বড় চামচ ১টি।

৪.চা চামচ ১টি।

৫.প্লাস্টিকের বাটি ১টি।

৬.সসপ্যান ১টি।

৭.স্পন্জ ১ টুকরো।

৮.চুলা।

৯.ভ্যাট রং তৈরি করার প্রয়োজনীয় রাসয়নিক দ্রব্য।

বাধার জন্য প্রয়োজনীয় উপকরন:

১.সুতা।

২.সূচ।

৩.দিয়াশলাইয়ের কাঠি।

৪.ছোট পাথর বা পুতি।

৫.পেনসিল,রাবার, স্কেল।

ভ্যাট রং তৈরি করার প্রয়োজনীয়  দ্রব্য:

১.ভ্যাট রং ১/৪ তোলা।

২.কস্টিক সোডা ১ তোলা।

৩. হাইড্রোজ ২ তোলা।

৪.কাপড় ১গজ।

প্রণালি:

১. প্রথমে নকশা অনুযায়ী কাপড়টি শক্ত করে বাধতে হবে।

২. পুরো কাপড়টি পানিতে ডুবে যায় এমন হাড়িতে পানি গরম করতে হবে।

৩. বাটিতে রং গুলো নিতে হবে।

৪.কস্টিক সোডা এবং হাইড্রোজ পৃথকভাবে একটা একটা করে গরম পানির হাড়িতে গুলে দিতে হবে।

৫.বাধা কাপড়টি ঠান্ডা পানিতে ভালোভাবে ভিজিয়ে নিয়ে রং এর হাড়িতে ডুবিয়ে দিতে হবে।

৬.কম  আচে কাপড়টি ১০ মিনিট রং এর হাড়িতে রাখতে হবে।

৭.এরপর কাপড়টি ভালোভাবে নাড়াতে হবে।

৮.রং এর হাড়ি থেকে কাপড়টি তুলে ছায়ায় শুকাতে হবে।

৯.কাপড়টি ২/৩ দিন  ভালোভাবে শুকালে  কাপড়টি ধুতে হবে।পড়ে বাধন খুলে সাবান পানিতে ভালোভাবে ধুয়ে শুকাতে হবে।

এইভাবে টাইডাই নকশা তৈরি হয়ে যাবে।

Post a Comment

0 Comments